সোনাহাট স্থলবন্দরে ইমিগ্রেশন চালুর সিদ্ধান্ত

ভারতের আসামের ধুবড়ি জেলায় বাংলাদেশ ও ভারতের ডেপুটি কমিশনার (ডিসি) এবং ডিস্ট্রিক ম্যাজিস্ট্রেট (ডিএম) পর্যায়ের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত সোমবার সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল মঙ্গলবার এই সম্মেলন শেষ হয়।













কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন। এতে জেলা পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান, কুড়িগ্রাম বিজিবি পরিচালক লে. কর্নেল মো. জামাল হোসেন, ভূরুঙ্গামারী ইউএনও মাগফুরুল হাসান আব্বাসী, রাজিবপুর ইউএনও মেহেদী হাসান, জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের উপপরিচালক মাসুদ হোসেন, বাংলাদেশ ল্যান্ড পোর্ট অথরিটির সহকারী পরিচালক মাহফুজুল ইসলাম ভূঁইয়া, সোনাহাট স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সরকার রকিব আহমেদ জুয়েল সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। অপরদিকে ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেন ধুবড়ি জেলা প্রশাসক অনন্ত লাল জ্ঞানী। তার সঙ্গে ছিলেন পানবাড়ি মানকারচর জেলা প্রশাসক আতিকা সুলতানা, বিএসএফ অধিনায়ক ললিত কুমার, ধুবড়ি পুলিশ সুপার ডিডি হাজারিকা, মানকার চর এএসপি কাঙ্কন জ্যোতি।